বেতারের মহাপরিচালক আহম্মদ কামরুজ্জামান আর নেই

Dashmina 1 samakal 62db95cbd4c78 1

বাংলাদেশ বেতারের মহাপরিচালক (ডিজি) আহম্মদ কামরুজ্জামান মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। গতকাল শুক্রবার রাতে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। আজ শনিবার মহাপরিচালকের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা মো. মাহমুদুন নবী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আহম্মদ কামরুজ্জামান বেশকিছু দিন ধরে ক্যানসারে ভুগছিলেন। সিঙ্গাপুর সময় শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই কন্যা সন্তান ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আজ রাতে তার মরদেহ দেশে আসার কথা রয়েছে বলেও জানান মহাপরিচালকের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা। বেতারের প্রধান প্রকৌশলী হিসেবে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগপ্রাপ্ত আহম্মদ কামরুজ্জামান চলতি বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি বেতারের মহাপরিচালক (গ্রেড-১) হিসেবে চলতি দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এর আগে, ২০২১ সালের ১১ জানুয়ারি থেকে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত বেতারের মহাপরিচালক (গ্রেড-১) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। আহম্মদ কামরুজ্জামান ১৯৮৭ সালে ৭ম বিসিএসের মাধ্যমে তথ্য ক্যাডারে মেধা তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করে বেতারে যোগ দেন। ১৯৮৭ সালের ১ এপ্রিল বেতারের খুলনা শাখায় যোগদানের মাধ্যমে তার চাকরিজীবনের সূচনা। পরে বিভিন্ন সময়ে গবেষণা ও গ্রহণ কেন্দ্র, ‍উচ্চশক্তি প্রেরণ কেন্দ্র-১, মহাশক্তি প্রেরণ কেন্দ্র, ক্ষুদ্রতরঙ্গ প্রেরণ কেন্দ্র, জাতীয় বেতার ভবন, পরিকল্পনা শাখা, কারিগরি কার্যসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরে নিজের মেধা, পরিশ্রম ও সততার স্বাক্ষর রেখে তিনি বেতারকে সমৃদ্ধ করেছেন। ২০১৪ সালের ১৪ অক্টোবর বেতারের প্রধান প্রকৌশলী হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছিলেন। আহম্মদ কামরুজ্জামান ১৯৬৩ সালের ১ জানুয়ারি যশোরের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছাত্রজীবনের বিভিন্ন স্তরে মেধার পরিচয় দিয়েছেন। ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজের ছাত্র থাকা অবস্থায় মাধ্যমিক পরীক্ষায় যশোর বোর্ডে সম্মিলিত মেধা তালিকায় ৬ষ্ঠ স্থান ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় ৪র্থ স্থান অধিকার করেন। পরবর্তীতে তিনি ভারত সরকারের স্কলারশিপ নিয়ে বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যাচেলর অব টেকনোলজি, ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে প্রথম শ্রেণিতে স্নাতক সম্পন্ন করেন। ব্যক্তিগত জীবনে আহম্মদ কামরুজ্জামান দুই কন্যা সন্তানের জনক এবং তার স্ত্রী শাহনাজ পারভীন একজন গৃহিণী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *