যে কাজগুলো পদ্মা সেতুর ওপর করা নিষেধ

ডেস্ক রিপোর্টঃ

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) গণবিজ্ঞপ্তি দিয়ে জারি করা নির্শদেনায় বলা হয়- ২৫ জুন জাতির স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ২৬ জুন সকাল ৬টা থেকে সরকার নির্ধারিত টোল প্রদান সাপেক্ষে সেতু পারাপার হওয়া যাবে।পদ্মা সেতুর নিরাপত্তা ও স্থায়িত্ব রক্ষার্থে দেওয়া নির্দেশনাগুলো: ১. পদ্মা সেতুর ওপর অনুমোদিত গতিসীমা ৬০ কিলোমিটার/ঘণ্টা।২. পদ্মা সেতুর ওপর যে কোনো ধরনের যানবাহন দাঁড়ানো ও যানবাহন থেকে নেমে দাঁড়িয়ে ছবি তোলা/হাঁটা সম্পূর্ণ নিষেধ।৩. বিশেষভাবে জানানো যাচ্ছে যে, তিন চাকা বিশিষ্ট যানবাহন (রিকশা, ভ্যান, সিএনজি, অটো রিকশা ইত্যাদি), পায়ে হেঁটে, সাইকেল বা নন-মটোরাইজড গাড়ি যোগে সেতু পারাপার হওয়া যাবে না।৪. গাড়ির বডির চেয়ে বেশি চওড়া এবং ৫.৭ মিটার উচ্চতার চেয়ে বেশি উচ্চতার মালামালসহ যানবাহন সেতুর ওপর দিয়ে পারাপার করা যাবে না। ৫. সেতুর ওপরে কোনো ধরনের ময়লা ফেলা যাবে না। পদ্মা সেতু একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় স্থাপনা বিধায় সেতু পারাপারে সর্বসাধারণকে উপরোক্ত নির্দেশনা মেনে চলার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। সড়ক ও সেতুর ক্ষতি কমাতে নির্ধারিত ওজন সীমা মেনে চলারও আহ্বান জানানো হয়েছে। পদ্মা সেতুর নিরাপত্তা ও স্থায়িত্ব রক্ষার্থে এটি ব্যবহারকারীদের এই নির্দেশনা গুলো দিয়েছে সড়ক পরিবহন ও বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.