পালিয়েও বাঁচতে পারলেন না ইউপি সদস্য ফরিদুল ইসলাম

 

 

312125028 483492010488425 7175679781770254030 n 2

নাটোরের সিংড়ার বামিহাল গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পাল্টাপাল্টি হামলায় দুই আওয়ামী লীগের নেতাকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় পলাতক ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য মো. ফরিদুল ইসলামও পালিয়ে বাঁচতে পারলেন না।বুধবার (১৯ অক্টোবর) ভোরে সিরাজগঞ্জ জেলার সলঙ্গা থানার হাইওয়ের পাটধারী এলাকা থেকে মো. ফরিদুল ইসলামের গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান।ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য ফরিদুল ইসলাম উপজেলার বামিহাল গ্রামের মৃত খোকা আকন্দের ছেলে এবং সুকাশ ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ছিলেন স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সিংড়ার বামিহাল এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে নিহত ফরিদুল ও সাবেক ইউপি সদস্য আফতাব উদ্দিনের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। প্রায় দুই দশকের বেশি সময় ধরে দুই পক্ষের চলা সংঘর্ষে প্রায় ১২ জন নিহত হয়েছেন।পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, চলমান বিরোধের জেরে ৯ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আফতাবের নেতৃত্বে কয়েকজন ফরিদুল ইসলামের অনুসারী রুহুল আমিন ও আবু মুসার বাড়িতে হামলা চালায়। ওই হামলার কিছু সময় পর বামিহাল বাজারে গিয়ে পাল্টা আফতাব ও তার লোকজনের ওপর হামলা চালান রুহুল ও মুসা। এসময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আফতাব ও রুহলসহ চারজনকে এলোপাথাড়ি কোপানো হয়। পরে আফতাবকে উদ্ধার করে সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। অন্যদিকে পরদিন রাজশাহী মেডিকেলে মৃত্যু হয় রুহুল আমিনের। দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ২ জন নিহত হওয়ার পর বামিহাল গ্রাম পুরুষ শূন্য হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় হত্যা মামলা হলে বর্তমান ইউপি সদস্য ফরিদুল ইসলাম পালিয়ে যান। পাশাপাশি তিনি ওই দুইজন নিহতের ঘটনায় আসামি ছিলেন।এদিকে, প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার (১৯ অক্টোবর) সকালে এলাকার লোকজন ঢাকা-পাবনা মহাসড়কের পাশে একজনের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে। পরে খবর পেয়ে ঢাকা-পাবনা মহাসড়কে সলঙ্গা থানার পাটধারী এলাকার পাশ থেকে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে। সলঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, সকালে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে আমরা কাজ শুরু করি। পুলিশ ছাড়াও ঘটনাস্থলে সিআইডি ও পিবিআই কাজ করছে। ধারণা করা হচ্ছে, দুর্বৃত্তরা মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) রাতে তাকে হত্যা করে মরদেহ মহাসড়কের পাশে ফেলে রেখে যায়। ওই ইউপি সদস্যকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *