টাঙ্গাইলে চলন্ত বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণ : মূলহোতাসহ গ্রেপ্তার ১০

bus

টাঙ্গাইলে চলন্ত বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনায় ডাকাতির মূল পরিকল্পনাকারী রতন হোসেনসহ ডাকাত চক্রের ১০ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের এলিট ফোর্স র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। গতকাল রোববার রাতে ঢাকা, গাজীপুর ও সিরাজগঞ্জ অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাবের একাধিক দল।বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‍্যাব সদর দপ্তরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন। তিনি বলেন, আজ সোমবার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‍্যাব মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে।উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থেকে ঈগল এক্সপ্রেসের একটি বাস নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে। রাত সাড়ে ১১টার দিকে সিরাজগঞ্জের একটি খাবারের হোটেলে বাসটি যাত্রাবিরতি নেয়। সেখান থেকে ছেড়ে আসার পর তিন দফায় যাত্রী সেজে ওই বাসে ওঠেন ডাকাত চক্রের সদস্যরা। বাসটি টাঙ্গাইল পার হওয়ার পর ডাকাতেরা অস্ত্রের মুখে বাসটির নিয়ন্ত্রণ নেন। তারা যাত্রীদের বেঁধে সব লুটে নেন। এ সময় বাসে থাকা এক নারী যাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়।ওই ঘটনার পর তিনজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তারা হলেন- রাজা মিয়া, মো. আওয়াল ও নুরনবী। তাদের মধ্যে রাজা মিয়া বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণ এবং অপর দুজন ডাকাতিতে অংশ নেওয়ার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *