ফুটবল থেকে যে ‘ভাই’ পেয়েছেন রোনালদো

খেলা ডেস্ক

রিয়াল মাদ্রিদের দিনগুলিতে মাঠে তাঁরা ছিলেন দুর্দান্ত জুটি। ২০০৯ থেকে ২০১৮ তো আর কম দিন নয়। মাঠের বাইরেও বন্ধুত্বটা পাকা হয়। তাঁদের একজন রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়েছেন চার বছর আগেই। আরেকজন আনুষ্ঠানিকভাবে রিয়াল ছাড়লেন কাল।বলা হচ্ছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও মার্সেলোর কথা। ব্রাজিলিয়ান লেফটব্যাক কাল রিয়াল ছাড়ার পর তাঁকে আবেগতাড়িত ভাষায় বিদায়ী শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রোনালদো।নয় মৌসুম রোনালদোর সঙ্গে খেলে আক্রমণভাগে বহু স্মরণীয় মুহূর্তের জন্ম দিয়েছেন মার্সেলো। রিয়ালের হয়ে রোনালদোর অনেক গোলের উৎসও তিনি। পর্তুগিজ তারকার সঙ্গে মাঠের বাইরের বন্ধুত্বটাও গড়িয়েছে পরিবার পর্যন্ত। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গত রাতে রোনালদো একটি পোস্ট করেন মার্সেলোকে নিয়ে। রিয়ালের জার্সিতে দুজনের সাদাকালো ছবি।সেই ছবির ক্যাপশনে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তারকা লিখেছেন, ‘সতীর্থের চেয়েও বেশি কিছু, ফুটবল থেকে পাওয়া আমার ভাই। মাঠ ও মাঠের বাইরে সর্বকালের অন্যতম সেরা তারকা, যার সঙ্গে আমি আনন্দে ড্রেসিংরুম ভাগ করতে পারি। নতুন রোমাঞ্চে নিজের সবকিছু নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ো, মার্সেলো!’২০১৮ সালে রিয়াল ছেড়ে জুভেন্টাসে নাম লেখান রোনালদো। এর মধ্য দিয়ে রিয়ালে রোনালদোর সঙ্গে মার্সেলোর মাঠের জুটি ভেঙে যায়। রিয়ালের হয়ে জেতা পাঁচটি চ্যাম্পিয়নস লিগ ট্রফির চারটিই রোনালদোর সঙ্গে জিতেছেন মার্সেলো। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুজনের যোগাযোগটা নিয়মিত। এবার রিয়াল লা লিগা ও চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের পর মৌসুম শেষে ব্রাজিলিয়ান তারকার চুক্তির মেয়াদও ফুরোয়।রিয়াল নতুন চুক্তিতে রাজি না হওয়ায় চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালই হয় ক্লাবটির হয়ে তাঁর শেষ ম্যাচ। কাল রিয়ালে বিদায়ী সংবাদ সম্মেলনে মার্সেলো জানিয়েছেন, এখনই ইউরোপ ছাড়ার ইচ্ছে তাঁর নেই।রিয়ালের কিংবদন্তি গোলকিপার ও সাবেক অধিনায়ক ইকার ক্যাসিয়াসও বিদায়ী শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মার্সেলোকে। ক্যাসিয়াসের টুইট, ‘তুমি বাচ্চা বয়সে এসেছিলে। কতবার চিৎকার করে বলেছি, মার্সেলো ফিরে এসো! এমন কিংবদন্তি হওয়ার জন্য ধন্যবাদ। আমার বন্ধু, অনেক শুভেচ্ছা এবং ভবিষ্যতের জন্য শুভ কামনা।’মাদ্রিদের ক্লাবটির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ট্রফি (২৫) জিতেছেন মার্সেলো। গন্তব্য নিয়ে কিছু পরিষ্কার করেননি। শুধু জানিয়েছেন, চ্যাম্পিয়নস লিগে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে এমন একটি ক্লাবে খেলতে চান, ‘আমি খেলা চালিয়ে যাব। সে সামর্থ্য আছে বলেই মনে করি। ভবিষ্যৎ নিয়ে কিছু বলার থাকলে সেটা ইনস্টাগ্রামে জানিয়ে দেব। রিয়ালের বিপক্ষে খেলতেও সমস্যা নেই। আমি পেশাদার খেলোয়াড়, রিয়ালই আমাকে এভাবে গড়ে তুলেছে।’

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.