হাসপাতালে স্ত্রীর অসুস্থতার মধ্যেই লড়াই করে জয় নাদালের

জয়ের পর হাইজাকাতার সঙ্গে হাত মেলাচ্ছেন নাদাল

জয়ের পর হাইজাকাতার সঙ্গে হাত মেলাচ্ছেন নাদাল
ছবি: এএফপি

র‌্যাঙ্কিংয়ে ১৯৮তম হাইজাকাতা নিজের গ্র্যান্ড স্লাম অভিষেকের এই ম্যাচে হারলেও নাদালের মতো কিংবদন্তির বিপক্ষে প্রথম সেট জয়ের স্মৃতি নিশ্চয়ই মনে রাখবেন।
তবে ৩৬ বছর বয়সী নাদালের পুরো মনোযোগ যে ইউএস ওপেন ঘিরে থাকবে না, তা বোঝাই যাচ্ছে।

তাঁর স্ত্রী মেরি বিপদমুক্ত হলেও এখনো হাসপাতাল ছাড়তে পারেননি। মেরিকে হাসপাতালে ভর্তির ভিডিও কারা ফাঁস করেছে, খোঁজ করছে নাদালের পরিবার। এমনকি মেরির অসুস্থতার অতীত ইতিহাসও ফাঁস হয়েছে। হাসপাতাল পাল্টানোর কথা ভাবছে নাদালের পরিবার।মেরি এখন যে হাসপাতালে (কুইরনসালুদ পামাপ্লানাস) ভর্তি আছেন, সংবাদকর্মীরা সেখান থেকে যেকোনো কায়দায় তথ্য সংগ্রহ করেছে বলে মনে করছে নাদালের পরিবার। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’ জানিয়েছে, মেরিকে অস্ত্রোপচার করানোর দরকার হতে পারে।তবে তিনি এখন বিপদমুক্ত বলেই নাদাল আর ইউএস ওপেন থেকে ফেরার চিন্তা করেননি। নাদালের বোন মেরি পেরেল্লোর পাশে আছেন। গর্ভকালীন সময়ে জটিলতা কাটাতেই তাঁকে হাসপাতালে রাখা হয়েছে, ৩১তম সপ্তাহ থেকে ৩৪তম সপ্তাহ পর্যন্ত তাঁকে হাসপাতালে থাকতে হতে পারে বলে জানিয়েছে মার্কা।মেয়েদের এককে প্রথম রাউন্ডেই প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নিয়েছেন ইউএস ওপেনের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন এমা রাদুকানু। ইউএস ওপেনের ইতিহাসে মেয়েদের মধ্যে তৃতীয় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসেবে প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নিলেন ১৯ বছর বয়সী ব্রিটিশ তারকা। ফরাসি তারকা এলিজ কর্নেটের কাছে ৬–৩, ৬–৩ গেমে হেরে যান রাদুকানু। এর আগে সভিতোলিনা কুজনেৎসোভা এবং অ্যাঞ্জেলিক কেরবার ইউএস ওপেন জিতে পরের বছরই প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.