যাওয়া-আসার মধ্যে থাকব

আপনি কার সঙ্গে কাজ করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন?

সবার সঙ্গে। বিশেষ করে চঞ্চল ভাইয়ার সঙ্গে যখন লাইলী মজনুতে অভিনয় করলাম, ভীষণ ভালো লেগেছিল। অনেক কিছু শিখেছিলামও। আমি আসলে অভিনয়টা করতে খুব ভালোবাসি, সেটা যার সঙ্গেই হোক।

সিনেমায় কাজ করতে ইচ্ছা করে?

অবশ্যই। যেকোনো অভিনয়শিল্পীরই সিনেমায় কাজ করার স্বপ্ন থাকে। তবে আমি এমন কোনো সিনেমায় কাজ করতে চাই, যেখানে আমি অভিনয় করার সুযোগ পাব। থাকতে হবে বলে থাকা, এমন সিনেমায় আমি কাজ করতে চাই না।

আপনি শাস্ত্রীয় নৃত্যের শিল্পী। অভিনয়ে কীভাবে এলেন?

হঠাৎ করেই আসা। ২০১৫ সাল থেকে টুকটাক কাজ করতাম। ২০১৮ থেকে একেবারে নিয়মিত। এমনকি ব্যাচেলর পয়েন্ট–এ ডাক পেয়েছি নাচের শিল্পী হওয়ার কারণেই। তাদের এমন একজনকে দরকার ছিল, যে শাস্ত্রীয় নৃত্য জানে।হ্যাঁ, বাসার সবাই মিলে দেখতাম। বাসার কেউ কেউ তো বলেছিল, ইশ্, তুমি যদি এই নাটকে কাজ করতে। একদিন সুযোগ পেয়ে গেলাম। বাবা আমার অভিনয় করাটা পছন্দ করতেন না। ব্যাচেলর পয়েন্ট–এ যোগ দেওয়ার পর তিনি খুশি। কারণ, তিনি নিজেও এই নাটকের ভক্ত।

দর্শকের প্রতিক্রিয়া কেমন উপভোগ করেন?

ভীষণ। এখন তো ব্যাপারটা আরও সহজ হয়ে গেছে। ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামে কমেন্ট করে সবাই প্রশংসা করেন। ভীষণ ভালো লাগে। আর ইউটিউবে কমেন্ট দেখলে ভীষণ অনুপ্রাণিত হই।

লেখাপড়ার খবর কী?

মা–বাবা দুজনই বাইরে থাকেন। আমার ইচ্ছা আছে বাইরে পড়াশোনা করতে যাওয়ার।

যাওয়া-আসার মধ্যে থাকব

অভিনয় ছেড়ে দেবেন?

অভিনয় ছেড়ে যাওয়ার তো ইচ্ছা নেই। যাওয়া–আসার মধ্যে থাকব। আমার তো এ–লেভেল কমপ্লিট হয়েছে। পড়ার ইচ্ছা আছে ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজে, এখন দেখি সুযোগটা কিসে হয়।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.