বুয়েটের ছাত্র ফারদিন খুন: ময়নাতদন্ত শেষে বিষয় টি নিশ্চিত করেছেন চিকিৎসক

 

fardin web

ডেস্ক খবর ঃ

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদী থেকে গতকাল বিকেলে বুয়েটের ছাত্র ফারদিন নূর পরশকে হত্যা করা হয়েছেনারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) শেখ ফরহাদ পরশের ময়নাতদন্ত শেষে আজ (৮ নভেম্বর, ২০২২) সকাল ১১টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তিন চিকিৎসকের সমন্বয়ে একটি বোর্ড ময়নাতদন্ত করেন। অপর দুই সদস্য হলেন ডাঃ মফিজউদ্দিন নিপুন ও ডাঃ গোলাম মোস্তফা।ফরহাদ জানান, ফারদিনের মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার বুকেও আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তিনি আরো বলেন, ফারদিন তিন দিন আগে মারা যান এবং মৃত্যুর আগে তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়।“ভিসেরা রিপোর্ট পাওয়ার পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে, তবে এটা নিশ্চিত যে সে হত্যার শিকার ছিল,” তিনি যোগ করেন।এদিকে দুপুর ১টা ৪৫ মিনিটে ফারদিন নূরের পরিবারের সদস্যরা হাসপাতাল থেকে একটি ফ্রিজার ভ্যানে করে মরদেহ নিয়ে যান।ফারদিনের বাবার সহকর্মী নবীন চৌধুরী দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, “মরদেহ বুয়েট ক্যাম্পাসে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, যেখানে জোহরের নামাজের পর জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে তার গ্রামের বাড়িতে দেলপাড়া নয়ামাটিতে। নারায়ণগঞ্জের সদর উপজেলার এলাকা।সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হাফিজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।ফারদিন নিখোঁজ রামপুরা থানাধীন এলাকায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। কোথায় মামলা করবেন সে বিষয়ে তার পরিবার এখনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। পরিদর্শক বলেন, “স্বজনরা কোনো মামলা করলে আমরা মামলা রেকর্ড করব।”শুক্রবার নিখোঁজ হওয়া ফারদিন নূর পরশকে গতকাল (৭ নভেম্বর, ২০২২) বিকেলে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীতে ভাসমান অবস্থায় তার মরদেহ পাওয়া গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *