নাটোর থেকে ফেনসিডিল ও গাঁজাসহ তিনজনকে আটক করেছে র‍্যাব-৫

natore rab arrest
ছবি ঃর‍্যাবের প্রেস ব্রিফিং

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:
ফেনসিডিল এবং গাঁজাসহ নাটোর হতে তিনজনকে আটক করেছে র‌্যাব।  ৬ নভেম্বর রাত তিনটার দিকে নাটোর সদরের পূর্ব হাগুড়িয়া এরিয়া হতে তাদের আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ হতে ২১কেজি গাঁজা এবং ১১৩ বোতল ফেন্সিডিল  ২টি প্রাইভেট কার জব্দ করা হয়।র‌্যাব জানায়, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৫, রাজশাহীর সিপিএসসি, মোল্লাপাড়া ক্যাম্পের একটি অপারেশন টিম জানতে পারে যে, কতিপয় মাদকব্যবসায়ী ২টি প্রাইভেট কারে বহন করে মাদকদ্রব্যসহ বগুড়া হতে রাজশাহীর দিকে আসছে। বিষয়টি জানা সাথে সাথে র‌্যাবের গোয়েন্দা দল আজ ৬ নভেম্বর রবিবার রাত তিনটার দিকে নাটোর সদর থানার পূর্ব হাগুরিয়াস্থ মেসার্স এফএনএ ফিলিং স্টেশনের উত্তর-পূর্ব দিকে পূর্ব হাগুরিয়া ব্রীজের উপর চেকপোষ্ট পরিচালনা করে। চেকপোষ্ট করাকালীন বগুড়া হইতে রাজশাহীর দিকে ২টি সাদা রংয়ের প্রাইভেট কার চেকপোষ্টের সম্মুখে আসলে সিগন্যাল দিয়ে গতিরোধ করে র‌্যাব সদস্যরা । গতিরোধ করার সাথে সাথে ৪ জন লোক প্রাইভেট কার হতে নেমে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় কর্মকর্তা এবং ফোর্সের সহায়তায় প্রাইভেটকারসহ ৩জনকে আটক করা গেলেও ১ জন কৌশলে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরে র‌্যাব সদস্যরা প্রাইভেট কার তল্লাশি করে এরমধ্যে লুকায়িত অবস্থায় পিছনের ব্যাকডালা বক্স এর ভিতরে ২১ কেজি গাঁজা এবং ১১৩ বোতল ফেন্সিডিল পায়।আটকৃতরা হলো, পাবনা জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার মুলাডুলি এলাকার মৃত আব্দুল আজিজের ছেলে শাহীন হোসেন ওরফে সবুজ, পাবনা জেলার ঈশ্বরদী থানার ফরিদপুর ঢাখী পাড়া এলাকার হারুন উদ্দিনের ছেলে আসাদুল ইসলাম (২৫)  নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম থানার রাজাপুর এলাকার মোহাম্মদ ইদ্রিস আলীর ছেলে হৃদয় মোল্লা (২৫)।

র‌্যাব আরও জানায়, পলাতক অজ্ঞাতনামা ১জনসহ শাহীন হোসেন ওরফে সবুজ, আসাদুল ইসলাম এবং হৃদয় মোল্লা যোগসাজসে জব্দকৃত গাঁজাগুলো  ফেন্সিডিল কুমিল্লা থেকে কালেক্ট করে রাজশাহী জেলার নানারকম এলাকায় বিক্রয় করার উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিল। পরে বিপক্ষে নাটোর জেলার সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়েরের পর নাটোর সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *