নাটোরে শিমুল এমপি’র উদ্দ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন

নাটোরে শিমুল এমপি’র উদ্দ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন

potaka 01

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

নাটোর সদর ও নলডাঙ্গা উপজেলার সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের উদ্দ্যোগে স্বাধীনতার মহান স্থপতি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচী পালিত হয়েছে।। সোমবার (১৫ আগস্ট) সংসদ সদস্যের নিজ উদ্দ্যোগে কান্দিভিটুয়ার নিজ বাসভবন চত্ত্বরে সকাল ৮টায় কালো ব্যাজ ধারণের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচী শুরু করে তার নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা। সকাল ৯টায় জাতীয়, দলীয় ও কালো পতাকা উত্তোলন, সকাল ৯টা ১০মিনিটে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শফিকুল ইসলাম শিমুল এমপি পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন তার নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা। পরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন সাবেক জেলা আওয়ামী লীগ নের্তৃবৃন্দ, পৌর আওয়ামী লীগ, নাটোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ, জেলা যুবলীগ, সদর উপজেলা যুবলীগ, পৌর যুবলীগ, নলডাঙ্গা উপজেলা যুবলীগ, সদর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ, জেলা ও সদর যুব মহিলা লীগ, জেলা ও উপজেলা ছাত্রলীগ, পৌর ছাত্রলীগ, নলডাঙ্গা উপজেলা ছাত্রলীগ, শ্রমিক লীগ, জেলা সৈনিক লীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠণের নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা। পুষ্পস্তবক অর্পন শেষে ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্টে নিহত সকল শহীদ স্মরণে নিরবতা পালন, দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

Pus 09

সকাল সাড়ে ৯ টায় নাটোর সদর ‍উপজেলা ছাত্রলীগের আওয়াজনে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচী পালিত হয়। সকাল ১০টায় সংসদ সদস্যের বাসভবন থেকে শোক র্যা লী বের হয়ে কানাইখালী পুরাতন বাসষ্ট্যান্ড আলোচনা সভা প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়।

Rally 01

পরে নাটোর সদর ও পৌর যুবলীগের আয়োজনে কানাইখালী পুরাতন বাসষ্ট্যান্ডে ১৫ই আগষ্ট ও জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চূয়ালী উপস্থিত হয়ে বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল। তিনি তার বক্তব্যে বলেন আমার সহধর্মীনির অসুস্থতার কারণে আমি দেশের বাইরে অবস্থান করায় এমন একটি মুহুর্তে আপনাদের মাঝে উপস্থিত থাকতে না পেরে আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত।১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট আজকের এই দিনে ইতিহাসের মহানায়ক, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সকল সদস্যদের নৃশংসভাবে হত্যা করে। ঐ দিন নিহত সকল শহীদদের আত্মার রুহের মাগফেরাত কামনা করছি। ষড়যন্ত্রকারী খুনি জিয়ার ও তার কিছু বিপথগামী সেনা কর্মকর্তার নেতৃত্বে রাতের আঁধারে এ হত্যাযজ্ঞ চালানো হয়। আল্লাহর ইচ্ছায় সেই দিন বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জননেত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা দেশের বাইরে থাকায় তারা বেঁচে যায়। আজকে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা তার পিতার স্বপ্ন বাংলাদেশকে একটি সোনার বাংলায় রূপান্তর করছে। দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু আমরা দেখতে পাচ্ছি কিছুদিন যাবত ঐ বিএনপি ও তার দোসররা আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে। তারা শ্লোগান দিচ্ছে পচাত্তার এর হাতিয়ার, গর্জে উঠুক আরেকবার, কত বড় দুঃসাহস তাদের। তারা বিভিন্নভাবে দেশ বিরোধী কর্মকান্ডে লিপ্ত। ঐ খুনি তারেক ও  স্বাধীনতা বিরোধী বিএনপি’র উদ্দ্যেশ্যে বলতে চাই আপনারা যতই ষড়যন্ত্র করেন না কেন, কোন লাভ হবে না। বাংলার মানুষ জননেত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে আজ ঐক্যবদ্ধ রয়েছে। অবশ্যই যে কোন পরিস্থিতিতে বাংলার মানুষ আপনাদের মোকাবেলা করবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে দায়িত্ব দেওয়ার পর আমি গত ৮ বছর যাবত নাটোরের মানুষদের শান্তিতে রাখতে সক্ষম হয়েছি, শতভাগ নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছি। বিগত ৮ বছরে নাটোরে কোন সন্ত্রাসী কর্মকান্ড হয় নাই। আমি প্রিয় নাটোরবাসীর উদ্দ্যেশ্যে বলতে চাই এই শান্তির নাটোরেকে কেও অশান্ত করতে চাইলে, অবশ্যই তাদের প্রতিহত করা হবে, এই নাটোরে থেকে তাদেরকে চিরতরে বিতারিত করা হবে। এই বৃষ্টিভেজা দিনে অত্যান্ত কষ্ট করে দূর-দূরান্ত থেকে আসা সকল নেতা-কর্মী-সমর্থকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে সংসদ সদস্য তার প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষ করেন।

sova 02

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি মোঃ শামসুল ইসলাম, সাবেক দপ্তর সম্পাদক দিলীপ কুমার দাস, সাবেক যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মাসুদুর রহমান মাসুদ, সাবেক উপ দপ্তর সম্পাদক মোঃ আকরামুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান খাঁন চুন্নু, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন আনু, জেলা যুবলীগ সভাপতি বাশিরুর রহমান খান চৌধূরী এহিয়া, সাবেক ছাত্রনেতা ও সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোস্তারুল ইসলাম আলম, সদর ‍উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক ডাবলু, সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান আলমগীর, শ্রমিক লীগ নেতা সাইফুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা তৌহিদুর রহমান লিটন নাটোর সদর ‍উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল সাকিব বাকি, সাবেক ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম মাসুম, নাটোর সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সোহানুর রহমান সুরুজ,  জেলা সৈনিক লীগের সভাপতি আমিরুল ইসলাম জনি, মহিলা লীগ নেত্রী শেফালী আক্তার বিজলী, তনু রাণী দাসসহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাধনগর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার, সৈনিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউসূফ আলী শেখ, সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সোহানূর রহমান সুরুজ, জেলা ছা্ত্রলীগের সহ-সভাপতি রাহুল রহমান হীরা, সোহানুর রহমান সাকিব, রইস উদ্দিন রুবেল, মাসুদ, নলডাঙ্গা পৌর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শরিফুল ইসলাম পিয়াস,। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন পৌর যুবলীগের আহ্বয়ক সায়েম হোসেন উজ্জল।

পরে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত, দোয়া, মোনাজাত ও মিলাদ মাহফিলের মধ্য দিয়ে কর্মসূচী শেষ হয়।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *