নলডাঙ্গায় জীবন হত্যার প্রধান আসামী আসাদের গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন ও সমাবেশ

Natore Humanchain 25 09 2022 1 1

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
নাটোরের নলডাঙ্গায় ছাত্ররীগ নেতা জীবনস হত্যার প্রধান আসামী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ সহ সকল সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবীতে মানবন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারন। রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪টার সময় নলডাঙ্গা পৌরসভা মোড়ে এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারন ব্যানারে এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুস শুকুর, সাবেক সাধারন সম্পাদক এসএম ফিরোজ, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আলিম সরদার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শিরিন আক্তার, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাবেক সভাপতি রঈস উদ্দিন রুবেল, সাবেক সাধারন সম্পাদক তৌহিদুর রহমান লিটন, পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি শরিফুল ইসলাম পিয়াস, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট আঞ্জুয়ারা খাতুন রত্না, খাজুরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ সোহরাব হোসেন, মাধনগর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার মৃধা, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি মোস্তফা মাসুদ, বর্তমান সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন নুকুল প্রমুখ। এসময় নিহত জীবনের বাবা ফরহাদ হোসেন শাহ, মা জাহানার বেগম, স্ত্রী শাহনাজ পারভিন রুপা,শিশু সন্তান জাফরুল জীবন জায়হান রুপম, চাচা এসএম ফুকরুদ্দিন ফুটুসহ আওয়ামীলগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি, স্থাানীয় ব্যবসায়ীসহ এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারন। সমাবেশে বক্তারা বলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ একজন মামলাবাজ, চরিত্রহীন, লম্পট ও একজন খুনি। তার বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে জমি দখল, শালিসের নামে অর্থ হাতিয়ে নেয়াসহ সংগঠন বিরোধী নানা অপকর্ম এবং সন্ত্রাসী কার্যক্রমে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। ছাত্র জীবনে ইসলামী ছাত্র শিবির করতেন উল্লেখ করে তারা আরো বলেন, ছাত্রশিবিরের রাজনীতি শেষে জাতীয় পার্টির রাজনীতি করার পর আওয়ামীলীগে এসেছে। এই আসাদ আওয়ামীলীগে আসার পর থেকে দলের মধ্যে বিবেধ সৃষ্টি সহ নেতাকর্মীদের মধ্যে কোন্দল তৈরী করে সংগঠনের অনেক ক্ষতি করেছে। ছাত্রলীগ নেতা জামিউল আলিম জীবনকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যার জন্যই মারপিট করেছে খুনি আসাদ ও তারই ভাইয়েরা। তাকে রক্ষার জন্য একটি মহল ওঠে-পড়ে লেগেছে। গত ২১ সেপ্টেম্বর জীবনের মৃত্যু হলেও নাটক করে তিন ধরে মেডিকেলে রাখা হয়েছিল। কার ইন্ধনে, কি উদ্দেশ্যে এই নাটক সাজানো হলো তা জনগণ জানতে চায়। সমাবেশে বক্তারা অবিলম্বে আসাদসহ সকল সন্ত্রাসীদেও গ্রেফতারের দাবী জানান। সম্প্রতি নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদের নানা অপকর্ম নিয়ে ফেসবুক লাইভে তথ্য তুলে ধরে প্রতিকার চেয়েছিলেন ছাত্রলীগ নেতা জামিউল আলিম জীবন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন উপজেলা চেয়ারম্যান। এক পর্যায়ে ওই ঘটনার জেওে জীবন ও তার বাবাকে পিটিয়ে আহত করে উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদ ও ভাইয়েরা। আর এই ঘটনার তিন দিন পর শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টা ২০ মিনিটে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে লাইফ সার্পোটে থাকা জীবন মারা যায়। তবে তার মৃত্যু নিয়ে নানা নাটক করা হয়েছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে দাবী তোলা হয়। এই ঘটনায় জীবনের মা জাহানারা বেগম বাদি হয়ে নলডাঙ্গা থানায় উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদকে প্রধান আসামী করে তার দুই ভাইসহ অজ্ঞাত আরো ৫/৬ জনকে আসামী করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা রুজু করেন। ওই মামলার প্রেক্ষিতে আসাদ চেয়ারম্যানের ছোট ভাই আলিম আল রাজি শাহকে আটক করে কারাগারে পাঠায় পুলিশ। পরে জীবন মারা গেলে মামলাটি হত্যা মামলা হিসাবে গন্য করা হয়। মামলার প্রধান আসামী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদসহ অন্য আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছেন বলে জানিয়েছেন নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *