নতুন শুরুর অপেক্ষায় ম্যাক্সওয়েল

আবার টেস্ট ক্রিকেটে সুযোগ পাবেন এমন আশা সবসময়ই ছিল অস্ট্রেকিয়ার তারকা অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের। তবে শ্রীলঙ্কা সফরেই সুযোগটা এসে যাবে তা তিনি ভাবেননি। তাই ব্যাগি গ্রিন ক্যাপটা সঙ্গে করে আনেননি। হঠাৎ করে টেস্ট দলে ডাক পেয়ে যাওয়া অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার বললেন, ক্যাপটা নাকি আর পরার মতো অবস্থায় নেই। গলে টেস্ট খেলতে হলে তাকে নিতে হবে নতুন একটি ব্যাগি গ্রিন।ট্রাভিস হেড চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ার পর টেস্ট দলে যোগ করা হয়েছে ৩৩ বছর বয়সী ম্যাক্সওয়েলকে। ক্যারিয়ারের সাত টেস্টের সবশেষটি তিনি খেলেছেন ২০১৭ সালে, চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিপক্ষে। পাঁচ বছর পর আবারও তার সামনে জাতীয় দলের হয়ে লাল বলে খেলার হাতছানি। আগামী বুধবার গলে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। শনিবার (২৫ জুন) সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে ম্যাক্সওয়েল শোনালেন তার অভিষেকে পাওয়া ক্যাপের জীর্ণ হয়ে যাওয়ার গল্প। তিনি জানান, আমি অতি আত্মবিশ্বাসী হতে চাইনি। এটি (ব্যাগি গ্রিন) সঙ্গে না এনে বেশ ভালোই হয়েছে, কারণ ওটি পুরোপুরি নষ্ট হয়ে গেছে। তাই এই টেস্ট সফরের জন্য আমি নতুন একটি পাব। মনে হবে যেন প্রথম টেস্ট খেলতে নামছি।তিনি আরও জানান, আমার সবশেষ টেস্টে বাংলাদেশে আমরা জিতেছিলাম। ক্যাপের ব্যাপারটি ভিন্ন। গত বছর এটি বের করে দেখেছিলাম, নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল, ভেবেছিলাম বিষয়টি ভালো লক্ষণ নয়। আমার স্ত্রী গতকাল ক্যাপটা বের করে দেখেছে এবং বলেছে- মনে হয় না, আমি এটি আনতে পারব। একদমই  নষ্ট হয়ে গেছে। বাড়ি ফেরার পর দেখব এটি ঠিক করা যায় কিনা, তবে এই মুহূর্তে ভালো দেখাচ্ছে না।এবারের শ্রীলঙ্কা সফরে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে বেশ ভালো করেছেন ম্যাক্সওয়েল। তবে ২০১৯ সালের অক্টোবরের পর থেকে কোনো প্রথম শ্রেণির ম্যাচ তিনি খেলেননি। এতে অবশ্য কোনো সমস্যা দেখছেন না এই ব্যাটিং অলরাউন্ডার। তার মতে, শ্রীলঙ্কার কন্ডিশন এমন এখানে অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড়দের ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার মূল্য সামান্যই।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.