গুরুদাসপুরে আখ চাষের বাম্পার ফলন, দাম পেয়ে খুশি আখ চাষিরা

গুরুদাসপুর প্রতিনিধিঃ
নাটোরের গুরুদাসপুরে এবার আখের বাম্পার ফলন হয়েছে। বাজারে চাহিদা থাকায় দাম পাচ্ছেন ভালো। আখ চাষ লাভজনক হওয়ায় প্রতিবছর আখ চাষ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে লাভবানও হচ্ছেন চাষিরা। ফলে চাষিদের মুখে ফুটেছে হাসি। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, বেলে-দোআঁশ মাটি আখ চাষের জন্য উপযুক্ত। ছয়-সাত মাসেই আখের ফলন পাওয়া যায়। আখ চাষ করে অন্য আবাদের চেয়ে দ্বিগুণ লাভবান হচ্ছেন চাষিরা। এবার আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ফলনও বেশ ভালো হয়েছে। গত বছর উপজেলার ২৫হেক্টর জমিতে আখ চাষ হয়েছিল। চলতি বছরে তা বেড়ে ৩০ হেক্টর জমিতে আখ চাষ হচ্ছে।শরিফুল ইসলাম নামে এক আখচাষি বলেন, ‘চলতি মৌসুমে ৩৩ শতাংশ জমিতে আখ চাষ করেছি। এতে খরচ হয়েছে ২৫ হাজার টাকা। বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ার ভয়ে প্রাইকারী এক ব্যক্তির কাছে ৭০ টাকায় বিক্রি করেছি। এখন বিক্রি করলে লাখ টাকার ওপরে হতো। এবার সবারই আখের বাম্পার ফলন হয়েছে। ভালো দাম পেয়ে আমরা খুব খুশি। মশিন্দা গ্রামের চাষি শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আগে এই মৌসুমে আমন ধান চাষ করতাম। তাতে তেমন লাভ হতো না। তিন বছর ধরে আমন ছেড়ে আখ চাষ করছি। এতে অনেক লাভ হচ্ছে। ২৮ শতাংশ জমিতে এখন খরচ বাদ দিয়ে এক মৌসুমেই ৬০ হাজার টাকার বেশি লাভ হয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিসার মো. হারুনর রশিদ বলেন, আখ চাষ করে অন্য আবাদের চেয়ে দ্বিগুণ লাভবান হচ্ছেন চাষিরা। এবার আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ফলনও বেশ ভালো হয়েছে। চলতি বছর উপজেলার ৩০হেক্টর জমিতে আখ চাষ হয়েছে। প্রতিবছর আখ চাষ গুরুদাসপুরে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.