পাকিস্তানে দুই নারী এমপির ঝগড়া, ফোন ‘ছিনতাই’

পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী মুরাদ আলি শাহ মঙ্গলবার প্রাদেশিক পরিষদে ২০২২-২৩ অর্থ বছরের বাজেট উপস্থাপন করেছেন। আর এই বাজেট অধিবেশন চলার সময় ঐতিহ্য ধরে রেখে বিরোধীরা পরিষদে হট্টগোল তৈরি করে। তবে শুধু হট্টগোলেই শেষ হয়নি আজ। মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য শেষ হলে পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) আইনপ্রণেতারা ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহেরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য দুয়া ভুট্টোকে ঘিরে ধরেন। এরপর পিপিপির নারী সদস্য কুলসুম আখতার চান্দিও পিটিআইয়ের দুয়া ভুট্টোর সঙ্গে লড়াইয়ে লিপ্ত হন। এই ঝগড়া চলাকালে পিপিপির সদস্য পিটিআই সদস্যের মোবাইল ফোন কেড়ে নেন। মঙ্গলবার এই খবর দিয়েছে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম জিওটিভি।  মোবাইল কেড়ে নিয়ে চান্দিও সেটি নিজ দলের আরেক আইনপ্রণেতা মানসুর ওয়াসানকে দেন। পরে ওয়াসান সেই ফোন নিয়েই পরিষদ ভবন থেকে বেরিয়ে যান। ঘটনার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে পিটিআই নেতা খুররাম শের জামান বলেন, চান্দিও এবং ওয়াসান দুয়ার কাছ থেকে তার ফোন ছিনতাই করেছে। বিলওয়াল এবং আসিফ জারদারির আইনপ্রণেতারা এটাই প্রমাণ করেছেন যে, তারা চোর। জামান জানান, তার কাছে ঘটনার ভিডিও প্রমাণ আছে এবং ঘটনায় জড়িত আইনপ্রণেতাদের বিরুদ্ধে পিটিআইয়ের পক্ষ থেকে ফার্স্ট ইনফরমেশন রিপোর্ট (এফআইআর) দাখিলেরও হুঁশিয়ারি দেন তিনি। এই ব্যাপারে দুয়া ভুট্টো বলেন, পিপিপির প্রাদেশিক পরিষদ সদস্যরা তার ফোন ছিনতাই করেছে এবং তাকে পরিষদ হল ত্যাগে বাধা দিয়েছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.