দেশে মাথাপিছু আয় বেড়ে ২৮২৫ ডলার

দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়েছে। এখন দুই হাজার ৮২৫ মার্কিন ডলার। চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরের সাময়িক হিসাব অনুযায়ী মাথাপিছু আয় এক বছরের ব্যবধানে বেড়েছে ২৩৪ ডলার। গত অর্থবছর শেষে দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় ছিল দুই হাজার ৫৯১ ডলার।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা শেষে এ তথ্য জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান।

মন্ত্রী এও জানিয়েছেন, মাথাপিছু আয় বৃদ্ধির পাশাপাশি চলতি অর্থবছর শেষে মোট দেশজ উৎপাদন বা জিডিপি প্রবৃদ্ধি বেড়ে দাঁড়াবে ৭ দশমিক ২৫ শতাংশে। ২০২০-২১ অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হয়েছিল ৬ দশমিক ৯৪ শতাংশ।

পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান

করোনার মধ্যে গত অর্থবছরের ৭ শতাংশের মতো জিডিপি প্রবৃদ্ধি নিয়ে অর্থনীতিবিদসহ বিশ্লেষকদের মধ্যে ছিল ব্যাপক সংশয়। সেই সংশয়ের মধ্যেই সাময়িক হিসাবে চলতি অর্থবছরের জিডিপি প্রবৃদ্ধি সোয়া ৭ শতাংশ হয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী। এই উচ্চ প্রবৃদ্ধি নিয়েও অর্থনীতিবিদদের মধ্যে আবারও নতুন করে সংশয় দেখা দিয়েছে।

মাথাপিছু আয় দুই হাজার ৮২৫ ডলারে উঠলেও বাস্তবে দেশের প্রতিটি মানুষের আয় তা নয়। কারণ মাথাপিছু আয় কোনো ব্যক্তির একক আয় নয়। দেশের অভ্যন্তরের পাশাপাশি রেমিট্যান্সসহ যত আয় হয়, তা দেশের মোট জাতীয় আয়। সেই জাতীয় আয়কে দেশের জনসংখ্যা দিয়ে মাথাপিছু ভাগ করে এ আয়ের হিসাব করা হয়। ফলে দেশে মাথাপিছু আয় বাড়লেও তাতে ব্যক্তির আয়ে তেমন কোনো তারতম্য হয় না।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.