জুতা কিনতে গিয়ে ব্যাগভর্তি ২৩ লাখ খোয়ালেন রাবি শিক্ষক

স্ত্রীর আমানতের ২৩ লাখ টাকা তুলে জুতার দোকানে ঢুকেছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এম মজিবুর রহমান। আনমনে জুতা পছন্দ করার সময় এক যুবক তার টাকার ব্যাগ নিয়ে চম্পট দেয়।

এ ঘটনায় বুধবার নগরীর বোয়ালিয়া থানায় একটি ছিনতাই মামলা হয়েছে। পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে নগরীর ডিঙ্গাডোবা ব্যাংক কলোনির এলাকার আশরাফুল ইসলামের পুত্র আল আমিন হৃদয় (২২) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে।

শিক্ষক মজিবুর রহমান রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক। তিনি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের সাবেক আহ্বায়ক।

বোয়ালিয়া থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার দুপুরে শিক্ষক মজিবুর রহমান নগরীর লক্ষ্মীপুর এলাকার জিপিও থেকে তার স্ত্রী জেসমিন রহমানের নামে এফডিআর এর ২৩ লাখ ১১ হাজার ১৩ টাকা তুলেন। সেই টাকা কালো স্কুলব্যাগে নিয়ে জুতার দোকানে ঢুকেন তিনি।

তিনি ব্যাগ এক বেঞ্চে রেখে যখন জুতা পছন্দ করছিলেন, তখন অজ্ঞাত এক যুবক ব্যাগটি নিয়ে দৌড় দেয়। দোকানের সেলসম্যান ধাওয়া করেও তাকে ধরতে পারেনি।

সিসি ক্যামেরার ফুটেজেও এ দৃশ্য দেখা গেছে। যুবকটির মুখে মাস্ক এবং মাথায় ক্যাপ ছিলো।

ওসি মাজহারুল জানান, তার চেহারার সঙ্গে মিল দেখে নগরীর ডিঙ্গাডোবা ব্যাংক কলোনির আল আমিন হৃদয় নামের যুবককে বুধবার ভোরে পুলিশ আটক করেছে। সিসিটিভি ফুটেজের ছিনতাইকারির সঙ্গে হৃদয়ের চেহারার ৯৫ ভাগই মিল পাওয়া গেছে। তবে সে স্বীকার করছে না। এ কারণে তার রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।

সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা গেছে ওই যুবক টাকা তোলার পর থেকেই শিক্ষক ও তার স্ত্রীকে অনুসরণ করছিল।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.