আরও দুই দেশে মাঙ্কিপক্স শনাক্ত

ডেস্ক খবরঃ
গুটিবসন্ত রোধে যে টিকা ব্যবহার করা হয়ে থাকে, সেগুলো মাঙ্কিপক্স প্রতিরোধে প্রায় ৮৫ শতাংশ কার্যকারিতা দেখিয়েছে
গুটিবসন্ত রোধে যে টিকা ব্যবহার করা হয়ে থাকে, সেগুলো মাঙ্কিপক্স প্রতিরোধে প্রায় ৮৫ শতাংশ কার্যকারিতা দেখিয়েছেছবি: রয়টার্স মেক্সিকো ও আয়ারল্যান্ডে প্রথমবারের মতো মাঙ্কিপক্স আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার দেশ দুটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া আলাদা বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। খবর এএফপি ও রয়টার্সের। গতকাল মেক্সিকোর স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, মেক্সিকো সিটিতে মাঙ্কিপক্স আক্রান্ত একজনকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ৫০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। মেক্সিকোর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের আন্ডার সেক্রেটারি হুগো লোপেজ গ্যাটেল এক টুইটার পোস্টে বলেন, আক্রান্ত ব্যক্তি নিউইয়র্ক সিটির স্থায়ী বাসিন্দা। সম্ভবত তিনি নেদারল্যান্ডসে আক্রান্ত হয়েছেন। লোপেজ আরও বলেন, ‘সৌভাগ্যজনকভাবে তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল এবং প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা হিসেবে তাঁকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। আমাদের আশা, কোনো জটিলতা ছাড়াই তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন।’ ওই ব্যক্তি কাদের সংস্পর্শে এসেছিলেন, সে ব্যাপারে কিছু উল্লেখ করেননি লোপেজ।গতকাল আয়ারল্যান্ডের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষও এক বিবৃতিতে দেশটিতে প্রথমবারের মতো মাঙ্কিপক্স আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে। বলা হয়েছে, অন্য এক ব্যক্তিকেও আক্রান্ত হিসেবে সন্দেহ করা হচ্ছে। তাঁর পরীক্ষার ফল এখনো হাতে পাওয়া যায়নি।এর আগে গত শুক্রবার আর্জেন্টিনায়ও প্রথমবারের মতো মাঙ্কিপক্স আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। দেশটির কর্তৃপক্ষ বলেছে, আর্জেন্টিনায় দুজন আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে একজন স্পেন থেকে আর্জেন্টিনায় ফিরেছেন এবং অন্যজন স্প্যানিশ নাগরিক, যিনি বুয়েন্স এইরেস সফর করছিলেন। তবে এ দুই ব্যক্তির মধ্যে কোনো সম্পর্ক নেই।আক্রান্ত পশুর মাধ্যমে মানবদেহে ছড়াতে পারে মাঙ্কিপক্স। এক ব্যক্তি থেকে আরেক ব্যক্তির মধ্যেও মাঙ্কিপক্স ছড়াতে পারে, তবে তা বিরল।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.